করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশ

দেশে গণহারে করোনা টিকা দেয়ার দেড় মাসের মাথায় এসে টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বিকেলে গণভবনে তিনি ছোটবোন শেখ রেহানাকে সঙ্গে নিয়ে কোভিড-১৯ এর টিকা নেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন।
গত বছরের ৯মার্চ বাংলাদেশে করোনা সনাক্তের ঠিক পরের দিন। গণভবনের ব্যাঙ্কোয়েট হলে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে মূল আলোচনাই ছিলো কেমন করে মহামারী ঠেকাবে বাংলাদেশ?

তখনো এই ভাইরাস কিভাবে মোকাবিলা করা যাবে, তার দিশা দিতে পারছিলেন না চিকিৎসক-গবেষকদের কেউই। তবে, পিছপা ছিলেন না জাতির পিতার কন্যা। তিনি আত্মবিশ্বাস নিয়ে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে বসে রীতিমত করোনা বিশেষজ্ঞের মতো মানুষকে শিখিয়েছিলেন কি করে মহামারীর বিস্তার রোধ করা যাবে।

শুধু প্রতিরোধই নয়। বিশ্বে যখন ধনী-সম্পদশালী দেশগুলোও তাদের নাগরিকদের ভ্যাকসিন দিতে হিমশিম খাচ্ছিলো। তখন ২৭ জানুয়ারি গণটিকা শুরু করে বাংলাদেশ। এতোদিন সবার প্রশ্ন ছিলো কবে করোনার টিকা নেবেন সরকার প্রধান। ২৭ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলনেও জানিয়েছিলেন তার আভাষ।
অবশেষে দেশবাসীর পাশাপাশি সবাইকে উৎসাহ দিতে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী ভ্যাকসিন নিলেন।
টিকা নেয়ার পরও সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান তিনি।