মাকে গলা কেটে হত্যা করল মেয়ে!

বাংলাদেশ

নাটোরের গুরুদাসপুরে সেলিনা বেগম নামে এক মাকে তার আপন মেয়ে ববি খুন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে পৌর সদরের উত্তর নারিবাড়ী মহল্লায়। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি জানাজানি হয়। বাড়িতে একা পেয়ে ওই খুন করা হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।

ববির স্বামী নজরুল ইসলাম মায়া মাহী এন্টারপ্রাইজের সেলস ম্যান হিসাবে কাজ করেন। তিনি জানান, চাকরির কারণে প্রতিদিনের জন্য চলে যান। তার মেয়ে ববি বাসায় ছিল। সোমবার সন্ধ্যার পুর্বে তিনি ফোনে খবর পায়। ববি বলছে- তাদের বাড়ির ভাড়াটিয়া শিরিন শিলাকে নিয়ে কাপড় কিনতে চাঁচকৈড় বাজারে যান।

বাজার থেকে ফিরে এসে দেখে তার মাকে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে। এদিকে বাড়ির ভাড়াটিয়া শিরিন শিলা বলেন, তিনি বাজারে যাননি। সেলিনাকে তার মেয়ে হত্যার পর ঘরের মেঝে পরিষ্কার করতে তিনি দেখেছে। তা ছাড়া বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে তার রক্তমাখা কাপড়ে সাবান দিয়ে ভেজাতে দেখেছে।

গুরুদাসপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সন্দেহের তীর তার মেয়ে ববির দিকেই যাচ্ছ। তদন্ত চলছে। ক্রাইম শাখার কর্মকর্তারা আসলে তথ্য নিয়ে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য উদ্ধার করা হবে। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গুরুদাসপুর-সিংড়া সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার জামিল আকতার নিজেও ঘটনার তদন্ত করছেন।

সূত্র: যুগান্তর