‘খালেদা জিয়ার করোনা আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট ভুয়া’

বাংলাদেশ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। তার কোভিড শনাক্ত হওয়ার তথ্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তর নিশ্চিত করলেও এ বিষয়ে তার পরিবার কিছুই জানে না। এমনকি তার করোনা আক্রান্ত হওয়ার তথ্য মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করছেন তারা।

খালেদা জিয়ার ভাগনে ও ব্যক্তিগত চিকিৎসক মামুন যুগান্তরকে বলেন, খালেদা জিয়ার করোনা রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ বলে যে তথ্য ছড়াচ্ছে সরকার তা ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। তিনি বলেন, ‘উনার করোনা পরীক্ষা করা হয়নি। যে রিপোর্ট ভাইরাল হয়েছে, এটা ভুয়া। এটা সঠিক নয়।’

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক মামুনের বরাত দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান যুগান্তরকে বলেন, এটি চেয়ারপারসনের নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা। করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা নেওয়া হয়নি।

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করায় বাড়তি সতর্কতা হিসেবে শনিবার বিকাল ৩টার দিকে রাজধানীর গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় নমুনা দেন খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের পরামর্শে করোনার নমুনা নেওয়া হয়। বিকাল ৩টার দিকে ল্যাবএইডের টেকনোলজিস্ট মো. সবুজ তার বাসায় প্রবেশ করেন।

এর কিছুক্ষণ পর খালেদা জিয়ার ভাগ্নে ডা. মামুনও বাসায় যান। এ সময় তার উপস্থিতিতে খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ এবং ডায়াবেটিস পরীক্ষার জন্য রক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরদিন রোববার দুপুরে খালেদা জিয়ার করোনার রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ এসেছে বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিনিয়র জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম জানান।