রেললাইনে বসে হেডফোনে গেম খেলতে গিয়ে ২ বন্ধুর মৃত্যু

বিনোদন

কানে হেডফোন লাগিয়ে রেললাইনের পাশে অনলাইনে ভিডিও গেম খেলায় বুঁদ ছিল দুই বন্ধু। কিন্তু কে জানত আজকেই তাদের শেষ দিন। পরে ট্রেনের আওয়াজ শুনতে না পারায় ধাক্কা লেগে দুই বন্ধুর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ভারতের পাঁচবেড়িয়া ও বঙ্কিমনগর জেলার হল্ট স্টেশনের মাঝামাঝি এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন জানিয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ঘটনার দিন সন্ধ্যায় কানে হেডফোন লাগিয়ে রেললাইনের ওপর বসে মোবাইলে অনলাইন গেম খেলছিল আরিফুল ধাবক (২৫) ও বাপ্পা রাজ শেখ (২২) নামে দুই তরুণ।

রেললাইনের ওপরে বসে তারা গেম খেলায় এতটাই মগ্ন ছিল যে ডাউন লাইন দিয়ে ছুটে আসা ট্রেনটিকে খেয়ালই করেনি। অবশ্য গেম খেলার সময় ডাউন লাইন দিয়ে ট্রেন আসার কথা তাদের মাথায় আসেনি। ট্রেনটির চালক লাইনে বসে থাকা দুই তরুণকে দেখে বারবার হর্ণ দিলেও তারা ট্রেনটিকে খেয়াল করেনি।

পরে স্থানীয় কয়েকজন বিষয়টি খেয়াল করে চিৎকার-চেঁচামেচি করলেও কানে হেডফোন থাকায় সেই চিৎকার ওই দুই তরুণের কানে যায়নি। শেষে বাধ্য হয়ে একজন রেললাইনের পাথর ছোঁড়েন, সেটা গায়ে লাগার পরই হুঁশ ফেরে তাদের। ততক্ষণে প্রায় একেবারে কাছে চলে আসে ট্রেনটি।

সেসময় দুজনে পালিয়ে বাঁচার চেষ্টায় রেললাইন থেকে পাশে সরে না গিয়ে বরং তারা ট্রেনটিকে পেছনে রেখে দৌঁড়ানো শুরু করে। কিন্তু ট্রেনের গতির কাছে তারা হেরে যায়। মুহূর্তেই ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দুজনের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে রেল পুলিশ পৌঁছে মরদেশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়।

পারভিনা খাতুন নামে মৃতের এক আত্মীয় জানান, ‘মোবাইলে কী যেন একটা অনলাইন গেমের প্রতি ইদানিং তাদের খুব নেশা তৈরি হয়েছিল। বেশিরভাগ সময় কানে হেডফোন লাগিয়ে সেই গেম খেলত। সেই গেমই কেড়ে নিল দুজনের প্রাণ। সবরকম চেষ্টা করেও তাদের বাঁচানো গেল না।’