নিজেকে রক্ষার অধিকার রয়েছে আজারবাইজানের: পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক

নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়ার সাথে চলমান যুদ্ধ নিয়ে আজারবাইজানকে আবারো সমর্থনের কথা পুনর্ব্যাক্ত করেছে পরমাণু অস্ত্রের অধিকারী দেশ পাকিস্তান। আজারবাইজানে নিযুক্ত পাকিস্তানের নতুন রাষ্ট্রদূত বিলাল হাইয়ী মঙ্গলবার বাকুর প্রতি ইসলামাবাদের এই সমর্থনের কথা পুনর্ব্যাক্ত করেন।

আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে নাগার্নো-কারাবাখে আজারবাইজানের সামরিক বাহিনীর অভিযান সম্পর্কে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত বিলাল হাইয়ী বলেন,‘নিজের ভৌগলিক অখণ্ডতা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার জন্য দখলদারদের বিরুদ্ধে কারাবাখে অভিযান পরিচালনা করছে আজারবাইজান। এটা আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী নিজেকে আত্মরক্ষার অধিকার আজারবাইজানের রয়েছে।’

আজারবাইজানের বেসামরিক মানুষজনের উপর আর্মেনিয়ার বর্বরোচিত হামলার সমালোচনা করে তিনি বলেন,‘আর্মেনিয়ার স্বীকৃত ভূখণ্ডের এক ইঞ্চি ভিতরেও প্রবেশ করেনি আজারবাইজান। কিন্তু তারপরও আজারবাইজানের বিভিন্ন শহর ও অঞ্চলে বসবাসরত বেসামরিক নাগরিকদের উপর কামানের গোলা নিক্ষেপ করছে আর্মেনিয়া। এটা খুবই ভয়াবহ একটি কাজ। বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে হামলা চালানো আন্তর্জাতিক আইনে নিষিদ্ধ।’

পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত বিলাল হাইয়ী আরো বলেন,‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে আজারবাইজান ও পাকিস্তান একই ধরণের সমস্যা মোকাবিলা করছে। আপনারা জানেন, কাশ্মির নিয়েও এরকম একটি সমস্যা বিদ্যমান রয়েছে এবং কাশ্মির ইস্যুতে জাতিসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবনাও রয়েছে। যাইহোক, নাগার্নো-কারাবাখ হোক বা কাশ্মির হোক, দখলকৃত এসব অঞ্চল থেকে অবৈধ দখলদার বাহিনীর অবিলম্বে সরে যাওয়া উচিত।’

সূত্র : ইয়েনি শাফাক