ফ্রান্সের গির্জায় হামলা নিয়ে মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য সরাল টুইটার

আন্তর্জাতিক

ফ্রান্সের গির্জায় গলা কেটে খুনের ঘটনা নিয়ে মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদের টুইট সরিয়ে দিলেন টুইটার কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার ওই টুইট সরানোর পিছনে তাঁদের যুক্তি, হিংসাকে গৌরবান্বিত করে টুইটারের নিময়ভঙ্গ করেছেন মহাথির।

টুইটারে কী বলেছেন মহাথির? মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, ‘মুসলিমদের ক্ষোভের এবং অতীতে ফ্রান্সের লক্ষ লক্ষ নাগরিককে গণহত্যার পিছনে ন্যায়সঙ্গত কারণ রয়েছে।’ ফ্রান্সের নিস শহরে বুধবারের হামলার পরেই এই টুইটে কার্যত ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটাগরিকদের একাংশ।

মহাথিরের টুইট সরানো হলেও তাঁর প্রতি অবশ্য নেটাগরিকদের রোষ কমেনি। সোশ্যাল মিডিয়াতেই মহাথিরের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় তুলেছে নেটদুনিয়ার একাংশ। মহাথিরের টুইটের তীব্র সমালোচনা করেছেন ফ্রান্সের ডিজিটাল সেক্টরের সচিব সেদ্রিক ও।

শুধু তা-ই নয়, আরও এক ধাপ এগিয়ে মহাথিরের টুইটার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করারও দাবি তুলেছেন তিনি। এ নিয়ে ইতিমধ্যেই ফ্রান্সে টুইটারের শীর্ষকর্তার সঙ্গেও কথা বলেছেন সেদ্রিক। তিনি বলেন, “এ বিষয়ে ফ্রান্সে টুইটারের ম্যানেজিং ডিরেক্টরের সঙ্গে আমি কথা বলেছি।

মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট অবিলম্বে নিষিদ্ধ করে দেওয়া উচিত। তা না করা হলে খুনের ঘটনায় আনুষ্ঠানিক ভাবে সহযোগী হওয়ারও শামিল হওয়া হবে টুইটারের।”