মন্দিরের পানি পান করায় মুসলিম যুবককে বেধড়ক মারধর

আন্তর্জাতিক

ভারতের উত্তরপ্রদেশে এক মুসলিম যুবক মন্দিরে ঢুকে পানি পান করায় বেধড়ক মারধরের শিকার হয়েছেন। রাজ্যের গাজিয়াবাদে তোলা সম্প্রতি একটি ভিডিও অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যায় এক যুবককে বেধড়ক মারছেন এক ব্যক্তি। আক্রান্ত যুবকের ‘অপরাধ’- তিনি মুসলিম হয়েও মন্দিরের পানি পান করেছেন।

এ ঘটনায় বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা শুরু হওয়ায় শেষে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তের নাম শিরিং নন্দন যাদব। তিনি বিহারের ভাগলপুরের বাসিন্দা। কর্মসূত্রে তিনি উত্তরপ্রদেশে রয়েছেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, স্থানীয় একটি মন্দিরে পানি খেতে ঢুকেছেন ওই যুবক। তিনি বেরিয়ে আসার পর অভিযুক্ত শিরিং ওই যুবককে তার নাম ও বাবার নাম জিজ্ঞাসা করেন। তারপর প্রশ্ন করেন, কেন তিনি মন্দিরে ঢুকেছিলেন। যুবক উত্তর দেওয়ার পরেই শুরু হয় মারধর। চড়, লাথি, ঘুষিতে আক্রান্ত যুবক বারবার ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ জানালেও টানা মারধর চলতেই থাকে।

সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর তা আলোচনায় আসে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র প্রতিবাদ শুরু হওয়ায় ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয় পুলিশ। বছর কয়েক আগে এই উত্তরপ্রদেশেরই দাদরি এলাকায় মহম্মদ আখলাক নামক এক ব্যক্তিকে ফ্রিজে গরুর মাংস রাখার ‘অপরাধে’ পিঠিয়ে মেরে ফেলা হয়েছিল।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা