ভারতীয় মুসলিম তরুণী আফিফার অনন্য কৃতিত্ব

আন্তর্জাতিক

সবচেয়ে কম বয়সী নিউরো সার্জেন হিসেবে কৃতিত্ব অর্জন করলেন ডা. মারিয়াম আফিফা আনসারী। মারিয়াম নিউরো সার্জারিতে তার পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন হায়দরাবাদের ওসমানিয়া মেডিক্যাল কলেজ থেকে। তিন বছরের ডিগ্রি সম্পন্ন হওয়ার পরে ভারতীয় মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে তিনি একজন সর্বকনিষ্ঠ নিউরো সার্জেন হিসেবে পরিচিত লাভ করেন। মাত্র ২৭ বছর বয়সেই সাফল্য তার ঝুলিতে।

‘আমার সাফল্য আল্লাহর কাছ থেকে পাওয়া সবচেযে বড় উপহার ও আশীর্বাদ’, বলে জানিয়েছেন নিউরো সার্জেন মারিয়াম আফিফা আনসারী। ২০২০ সালের অল ইন্ডিয়া নিট এসএস পরীক্ষায় মারিয়াম আফিফা ১৩৭র্ যাঙ্ক পান। তবে মারিয়াম দশম ক্লাস পযর্ন্ত উর্দু মাধ্যমেই পড়াশোনা করেছেন। তিনি মহারাষ্ট্রের মালেগাঁওয়ের তহজিন হাইস্কুলে সপ্তম শ্রেণি পযর্ন্ত পড়াশোনা করেন। এরপর তিনি হায়দরাবাদ চলে আসেন।

এরপর দুরুশ্বর বালিকা বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু হয় মারিয়ামের। বরাবরই পড়াশোনায় কৃতিত্বের সঙ্গে স্থান অধিকার করেন তিনি। দশম ক্লাসের পরীক্ষায় তিনি টপার হন ও সোনার পদক অর্জন করেন। পরীক্ষায় শীর্ষ র‌্যাংক দখল করে সফলতার সঙ্গে হায়দরাবাদের এমএস জুনিয়র কলেজ থেকে উত্তীর্ণ হন তিনি। তার এই কৃতিত্বের জন্য মারিয়াম হায়দরাবাদের ওসমানিয়া মেডিক্যাল কলেজ এমবিবিএস পড়ার সুযোগ পান।

এমবিবিএস পড়ার সময় তিনি পাঁচটি সোনার পদকে পুরস্কৃত হন। ২০১৭য়ে তার ইন্টারমিডিয়েট শেষ হওয়ার পরে মারিয়াম জেনারেল সার্জারির জন্য নিখরচায় ওই কলেজেই পড়ার সুযোগ পান। ২০১৯ তিনি সার্জারিতে পোস্ট গ্রাজুয়েট এমআরসিএস সম্পন্ন করেন ইংল্যান্ডের রয়্যাল কলেজ থেকে। এরপর আফিফা ২০২০ সালে ভারতের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অধীনে বিশেষ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি জাতীয় বোর্ড কোর্সের ডিপ্লোমেট সম্পন্ন করেন।

সমস্ত মুসলিম মেয়ের উদ্দেশে মারিয়াম বলেছেন, ‘কখনো হাল ছেড়ে দেবেন না– কাউকে কখনো বলবেন না– যে আপনি এটা করতে পারবেন না– সাফল্য অর্জন করে তাদের ভুল প্রমাণ করে দিন’। সমস্ত তরুণ প্রজন্মে কাছে একটি অনুপ্রেরণার নাম মারিয়াম আফিফা আনসারী।

সূত্র: পুবের কলম