হামাসের রকেট হামলায় জ্বলছে ইসরায়েল, বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা

আন্তর্জাতিক

আল-আকসায় টানা তিনদিন ধরে নিরপরাধ ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের ওপর হামলা চালাচ্ছে ইহুদিবাদী ইসরায়েলি সেনারা। মঙ্গলবারও (১১ মে) একাধিকবার আক্রমণ চালিয়েছে ইসরায়েল। এতে নিরস্ত্র ফিলিস্তিনি অনেকে আহত হয়েছেন, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাড়িঘর, স্থাপনা।

ফিলিস্তিনিদের ওপর সোমবারের বিমান হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত দেড় শতাধিক, এর মধ্যে অনেকে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন। এরইমধ্যে পাল্টা হামলা হিসেবে ইসরায়েলের অভ্যন্তরে শতাধিক রকেট হামলা চালিয়েছে স্বাধীনতার সপক্ষের সংগঠন হামাস।

এতে দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর তেল আবিবে একের পর এক বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, রকেট হামলার ঘটনায় ইসরায়েলের প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বেন গুরিওন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বিমানবন্দরটি তেল আবিবের পাশেই অবস্থিত।

অ্যাসোসিয়েট প্রেসের (এপি) খবরে বলা হয়েছে, হামাসের কয়েক শতাধিক রকেট হামলায় ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলের আশখেলন শহরে দুই নারী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া অনন্ত ১০ আহত হয়েছেন। গত সোমবার থেকে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী বিমান হামলা চালায়।

সেই হামলা এখনও অব্যাহত রেখেছে তারা। সোমবার সকালে একদল ইসরায়েলি সেনা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আল-আকসায় ঢুকে পড়ে।এসময় ফিলিস্তিনিরা তাদের বাধা দিলে তাদের ওপর গুলিবর্ষণ করে ইসরাইলি বাহিনী। নামাজরত ফিলিস্তিনিদের ওপর রাবার বুলেট, টিয়ার গ্যাস, সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। এতে অনেকে আহত হন।