এখনো আসল ক্ষেপণাস্ত্র বেরই করিনি: হামাস

আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগঠন হামাসের সঙ্গে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ শুরুর পর এখন পর্যন্ত ইসরায়েলে দেড় হাজারের বেশি রকেট ছুড়েছে হামাস। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এদিকে হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর উপ-প্রধান সালেহ আল আরোয়ি বলেছেন, এ পর্যন্ত ব্যবহৃত সব ক্ষেপণাস্ত্র ছিল পুরনো, মূল ক্ষেপণাস্ত্র এখনও ব্যবহার করিনি আমরা।

আল-আকসা টিভি চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, আমাদের কয়েক জন কমান্ডার নিহত হওয়ার কারণে প্রতিরোধ সংগ্রাম দুর্বল হয়ে পড়বে এটা ভাবা ঠিক হবে না। শত্রুদের এমন ভাবনা মারাত্মক ভুল। বাস্তবে প্রতিরোধ সংগ্রাম প্রতিদিনই আরও শক্তিশালী হবে। তিনি আরও বলেন, প্রতিরোধ সংগ্রামীরা মাসের পর মাস শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার সক্ষমতা রাখে।

এদিকে ইসরায়েলের বেন গুরিয়ন বিমানবন্দরের পর এবার ‘রামুন’ বিমানবন্দরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে হামাস। হামাসের সামরিক শাখা কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা বলেছেন, বৃহস্পতিবার ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলের রামুন বিমানবন্দরে মধ্য পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ‘আইয়াশ-২৫০’ এর সাহায্যে হামলা চালানো হয়েছে।

গাজা থেকে বিমানবন্দরটির দূরত্ব ২২০ কিলোমিটার, সেখানে ২৫০ কিলোমিটার পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে আঘাত হানা হয়েছে। আবু ওবায়দা বিশ্বের সব বিমান সংস্থাকে ইসরাইলে সব ধরনের ফ্লাইট পরিচালনা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।