আমেরিকাকে পাত্তাই দিলেন না এরদোয়ান

আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনের পক্ষে অবস্থান নেয়ায় ও আমেরিকার সমালোচনা করায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানকে উদ্দেশ্য করে বিবৃতি দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। সেই বিবৃতি বুধবার (১৯ মে) প্রত্যাখান করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। এরদোয়ানের মুখপাত্র ওমর সেলিক বলেছেন, ইসরায়েলের সমালোচনা করায় এরদোয়ানকে ইহুদিবিরোধী বলা হয়েছে।

এক টুইটে তিনি বলেন, আমাদের প্রেসিডেন্টকে ইহুদিবিরোধী বলে অভিযুক্ত করা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। এটি আমাদের প্রেসিডেন্টকে সম্পর্কে মিথ্যা বলা হয়েছে।
ইসরায়েলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র বিক্রি চুক্তির বিষয়ে সোমবার (১৭ মে) বাইডেনের উদ্দেশে এরদোয়ান বলেন, আপনি আপনার রক্তাক্ত হাত দিয়ে ইতিহাস লিখছেন।

এরদোয়ানের এমন বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয় যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে মার্কিন ররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ও অন্যান্য তুর্কি নেতার উসকানিমূলক কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছে।

এ ধরনের মন্তব্য সহিংসতা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। এর আগে জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর দিকে পাথর ছুড়লে প্রত্যুত্তরে ইসরায়েলি পুলিশ তাদের ওপর রাবার বুলেট ছোড়ায় ইসরায়েলকে ‘সন্ত্রাসী রাষ্ট্র’ বলে আখ্যা দিন এরদোয়ান।

গত সপ্তাহ থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলি বর্বরতায় এখন পর্যন্ত ২২০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে; যার মধ্যে ৬৩ জনই শিশু। আহত হয়েছে সহস্রাধিক। অন্যদিকে এই সংঘাতে ইসরায়েলের ১০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।