নীরবে জেল খাটছেন একজন কোরআনের পাখি

অন্যান্য

নোয়াখালীতে নিরবে জেল খেটে যাচ্ছেন একজন রাসূল প্রেমিক হাফেজ। দেখার যেন কেউ নেই।
তার নাম হাফেজ মুহাম্মদ আবদুল আজীজ। বাড়ি নোয়াখালী জেলাতে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে তিনি ইউসুফ নবীর পাঠশালায় (জেলখানায়) বন্দী। গত মার্চ মাসে নরেদ্র মোদী বাংলাদেশে আসতে চাইলে নোয়াখালীর বিক্ষোভ মিছিলে তিনিও যোগ দেন। সেই বিক্ষোভের পর মামলা হয়।

উক্ত মামলাতে গ্রেফতার করা হয় অসহায় হাফেজ আব্দুল আজীজকে। গরিব ঘরের সন্তান। বাবা মায়ের ঘরের ভিটা ছাড়া আর কিছুই নেই। কেবল ইসলামকে ভালবেসে, মুসলিম বিদ্ধেষী নরেন্দ্র মোদীর যাত্রা ঠেকাতে যোগ দিয়েছিলেন মিছিলে। সেই মামলার মোটামুটি সবাই মুক্তি পেলেও অর্থহীন এই নিঃস্ব মানুষটির মুক্তি মিলেনি৷ মুক্তির জন্য যেই পরিমাণ অর্থবিত্ত খরচ করা উচিত হয়তো তার সক্ষমতার অভাবে এখনও চোখের পানি ঝরছে বন্ধি পাঠশালায়।

উক্ত মিছিলের ডাক যারা দিয়েছিলেন তাদের নৈতিক দায়িত্ববোধ ছিল এই লোকটির পাশে দাঁড়ানো৷ উনারা কেন তার পাশে দাঁড়ায়নি বা খোঁজ নেয়নি সেটাও একটা বড় প্রশ্ন। তাই গণতান্ত্রিক কোনো আন্দোলন সংগ্রামে নামার আগে তার দুনিয়াবি বেনিফিটটা হিসেব করে নামা উচিত, যেন পরবর্তীতে পস্তাতে না হয়।

মনে রাখবেন, আপনার আমার রক্ত আল্লাহর জন্য, কোনো দালালকে কোটিপতি বানাবার জন্য নয়।হাফেজ আব্দুল আজিজের নিঃশর্ত মুক্তি চাই। তাকে অবশ্যই মুক্তি দিতে হবে। পাশাপাশি রাসুলপ্রেমিক ও দেশপ্রেমিকদেরকে বিনা কারণে হয়রানি না করার দাবি জানাচ্ছি পুলিশ প্রশাসনের কাছে।