ইমাম মুয়াজ্জিনকে খাওয়ানো নিয়ে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ২

অন্যান্য

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় প্রতিপক্ষের হামলায় দু’জন গুলিবিদ্ধ ও উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (১২ মার্চ) বিকেলে ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের মুক্তারপুর গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ছাতক থানার জাহিদপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে মুক্তারপুর গ্রামের মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে একই গ্রামের রইছ আলীর বাড়িতে খাবার খাওয়াতে চাইলে বাধা প্রদান করেন গ্রামবাসী। এ বিষয় নিয়ে ইসলাম উদ্দীনের সাথে একই গ্রামের কালারাজা, আব্দুল খালিক, আব্দুল আলিম গংদের কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদ প্রাঙ্গণে চরম উত্তেজনা বিরাজ করে ও একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

মসজিদ থেকে বের হয়ে বাড়িতে পৌঁছামাত্রই ইসলাম উদ্দীনের চাচা মন্তাজ আলীর বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র ও পাখি শিকারের বন্দুক দিয়ে হামলা করেন প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় ঘরের টিনে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় ২ জন গুলিবিদ্ধ ও নারী, শিশুসহ উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

গুরুতর আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও অন্যান্য আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে জাহিদপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই পলাশ দাস জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।