‘বাংলাদেশের মানুষ খেতে পায় না, তাই ভারতে আসে’, বক্তব্যের কড়া জবাব

অন্যান্য

সামাজিক অনেক সূচকে ভারতের চেয়ে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ভারতের লোকদের ৫০ শতাংশের ভালো কোনো শৌচাগার নেই। আর আমাদের ৯০ শতাংশ লোকই ভালো শৌচাগার ব্যবহার করেন। ‘বাংলাদেশের মানুষ খেতে পায় না, তাই ভারতে আসে’ ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) রাতে গণমাধ্যমকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকায় সোমবার (১২ এপ্রিল) অমিত শাহ বলেন, বাংলাদেশের গরিব মানুষ এখনো খেতে পায় না, তাই ভারতে আসে। বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ বন্ধ করা হবে। বাংলাদেশ নিয়ে অমিত শাহের এসব বক্তব্যের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন আরও বলেন, ‘পৃথিবীতে অনেক জ্ঞানী লোক আছেন, দেখেও দেখেন না, জেনেও জানেন না। তবে তিনি (অমিত শাহ) যদি সেটা বলে থাকেন, আমি বলব, বাংলাদেশ নিয়ে তার জ্ঞান সীমিত।

আমাদের দেশে এখন কেউ না খেয়ে মরে না। এখানে কোনো মঙ্গাও নেই।’ বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্ক যখন এতটা গভীর, তখন এ ধরনের মন্তব্য গ্রহণযোগ্য নয় উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা যদি এ ধরনের চিন্তা করে থাকেন, তাহলে আমি বলব, তাদের জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে হবে। আমার দেশের শিক্ষিত লোকের চাকরির অভাব আছে। তবে কম শিক্ষিত লোকের চাকরির অভাব নেই। আর ভারতের এক লাখের বেশি মানুষ বাংলাদেশে চাকরি করে। তাই আমাদের ভারতে যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।