হয় শয্যা দিন, নয়তো বাবাকে মেরে ফেলুন: ছেলের আকুতি

অন্যান্য

ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগীর ছেলে দুটি রাজ্য ঘুরেও বাবার জন্য হাসপাতালে শয্যা পাননি। শেষে অপারগ হয়ে তিনি আকুতি জানিয়েছেন, হয় বাবাকে একটা শয্যা দিন অথবা তাকে ইনজেকশন দিয়ে মেরে ফেলুন। বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সাগর কিশোর নহারশেটিভার নামের এই নাগরিক তার করোনা আক্রান্ত বাবাকে নিয়ে হাসপাতালের খোঁজে ঘুরেছেন মহারাষ্ট্র ও তেলেঙ্গানা রাজ্যে। রাজ্য দুটির বহু হাসপাতালে গিয়েও মেলেনি একটি শয্যা। এত ঘণ্টা পরে অ্যাম্বুলেন্সে তার বাবার অক্সিজেন এখন ফুরিয়ে এসেছে। রোগীর ছেলে সাগর কিশোর আক্ষেপ করে বলেন, ‘হয় তার জন্য একটি শয্যার ব্যবস্থা করুন অথবা একটি ইঞ্জেকশন দিয়ে তাকে হত্যা করুন’।

সাগর কিশোর বলেন, গতকাল (বুধবার) দুপুর ৩টা থেকে আমি চলাফেরা করছি। প্রথমে আমি ওয়ারোড়া হাসপাতালে গিয়েছিলাম, তারপরে চন্দ্রপুরে। শয্যা না থাকায় আমরা বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে গেলাম। তারপর রাত দেড়টায় তারা যান তেলেঙ্গানা রাজ্যে।
তিনি বলেন, আমরা রাত ৩টার দিকে তেলেঙ্গানায় পৌঁছেছি। তবে সেখানেও কোনো শয্যা ছিল না। তারপর আমরা সকালে মহারাষ্ট্রে ফিরে এসেছি। সেই থেকে আমরা এখানে অপেক্ষা করছি।