বিনা খরচে মহাকাশ ভ্রমণ!

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মহাকাশ ভ্রমণের সুযোগ এনে দিচ্ছে টেক বিলিয়নেয়ার এলন মাস্কের মালিকানাধীন বেসরকারি রকেট কোম্পানি স্পেসএক্স। বিশ্বে প্রথম বারের মতো বাণিজ্যিকভাবে চলতি বছরে এ মিশন চালু করার কথা ঘোষণা করল সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) স্পেসএক্স এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। এই প্রকল্পটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইনস্পিরেশন-৪’। এটি চালু হবে এ বছরের শেষ তিন মাসের শুরুর দিকে।

মহাকাশে যারা ভ্রমণ করতে চান, এমন ৪ জনকে নিয়ে স্পেসএক্স ক্রু ড্রাগন ক্যাপসুলে করে মহাকাশে নিয়ে যাওয়া হবে। প্রত্যেক ৯০ মিনিটে সেই ক্যাপসুল পৃথিবীর কক্ষপথকে প্রদক্ষিণ করবে।
স্পেসএক্স জানিয়েছে, প্রথম যারা যাবেন সেটা তাদের নাম আগামী সপ্তাহে ঘোষণা করা হবে।
স্পেসএক্স আরো জানিয়েছে, মিশনে অংশগ্রণকারী ব্যক্তিদের নির্বাচিত করার পর তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

শুধু তাই নয়, ‘ইনস্পিরেশন ৪’ প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত কর্মীদেরও গোটা বিষয়টি নিয়ে একটা প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হবে। ফ্লোরিডায় নাসার কেনেডি মহাকাশ কেন্দ্র থেকে লঞ্চ কমপ্লেক্স ৩৯-এ থেকে স্পেসএক্স ড্রাগনের উৎক্ষেপণ করা হবে।
স্পেসএক্স জানিয়েছে, যারা এই মিশনে যেতে ইচ্ছুক বা যারা মহাকাশ ভ্রমণের স্বপ্ন দেখেন তাদের সকলের জন্য এই সুযোগ এনে দেওয়া হচ্ছে।

এর আগেও ইলন মাস্কের সংস্থা মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের সহযোগিতায় এমন অভিযান করেছে। ২০২০ সালের নভেম্বরে ড্রাগন ক্রু নামে রকেটটি পাড়ি দেয় মহাকাশে। সেটিই ছিল প্রথম মহাকাশচারীদের নিয়ে বাণিজ্যিকভাবে কোনও অভিযান। তখনই জানানো হয়, আগামী ১৫ মাস ৭টি ড্রাগন ক্রু পাড়ি দেবে মহাকাশে। প্রত্যেকটি মহাকাশযানেই থাকবেন মহাকাশচারীরা। সেই মতো এটা স্পেসএক্সের দ্বিতীয় অভিযান।